সকল রুটে ফ্লাইট চালুর প্রস্তাব দেবে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ

মহামারি কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে দেশে ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া সর্বাত্মক লকডাউন চলবে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত। চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও ৭ দিন বাড়ানো হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ওই দিনগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশের অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করতে চায় বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

সরকার গঠিত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটিও টানা দুই সপ্তাহ বিধিনিষেধ দেওয়ার সুপারিশ দিয়েছে। তাই বিধিনিষেধের মেয়াদ ২১ এপ্রিল থেকে বাড়ানো হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই সোমবার (১৯ এপ্রিল) বৈঠকে বসবে আন্তঃমন্ত্রণালয়। এদিনের বৈঠকে ওই প্রস্তাব দেবে বেবিচক।

বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, বিমান মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেবিচক চেয়ারম্যান, বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

ফ্লাইট বন্ধের কারণে এই খাত ক্ষতিগ্রস্ত (এফেক্টেড) হচ্ছে উল্লেখ করে বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম. মফিদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা সব সময় চাই যেন ফ্লাইট চালু থাকে। আমরা এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

ইতোমধ্যে পাঁচ দেশের ফ্লাইট চালু হয়েছে। আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক উভয় রুটেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তাব করব আমরা।

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চলমান সর্বাত্মক লকডাউনের মধ্যে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধের ঘোষণা দেয় বেবিচক।

পরে প্রবাসীদের বি;ক্ষো;ভে;র মুখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঁচটি দেশে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেওয়া হয়। সূত্রঃ সময় টিভি