কাতারে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার কমেছে

উপসাগরীয় দেশ কাতারে করোনা পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কমেছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার। এদিকে ভ্যাকসিনের জন্য নতুন বয়সসীমা বেধে দিয়েছে কাতার সরকার। এখন থেকে ৩৫ বছর বয়সীরাও ভ্যাকসিন নিতে পারবেন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত কাতারে গত কয়েকদিনে কিছুটা কমেছে আক্রান্ত আর মৃতের হার। দেশটিতে কঠোর বিধিনিষেধ অব্যাহত থাকায় সংক্রমণ কমেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমে আসায় স্বস্তি ফিরেছে প্রবাসীদের মধ্যেও। ভ্যাকসিন নেওয়ার ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৩৫ করায় আনন্দিত তারা।

অভিবাসী ও স্থানীয় নাগরিক মিলিয়ে ২৬ লাখের বেশি জনসংখ্যার দেশটিতে এরই মধ্যে প্রায় ১৩ লাখ মানুষকে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। ভ্যাকসিন কার্যক্রম এখনো অব্যাহত আছে।

দেশটিতে বর্তমানে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীর সংখ্যা ২২ হাজারের বেশি। এখন পর্যন্ত ৪০ জন বাংলাদেশিসহ কাতারে করোনায় মারা গেছেন ৩৮২ জন।