নায়িকা মিমির সঙ্গে সেলফি তুলে পোলিং অফিসার বরখাস্ত

প্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রীর সাথে সুযোগ পেলে একই ফ্রেমে বন্দি হতে কেইবা না চায়। কিন্তু জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিমির সাথে সেলফী তুলে বিপাকে পড়লেন ভোট কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা সেকেন্ড পোলিং অফিসার।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে টানটান উত্তেজানায় ভোটগ্রহণ চলছে। জলপাইগুড়ি সদর বিধানসভা কেন্দ্রের ভোটার অভিনেত্রী ও সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। গতকাল শনিবার বেলা ১টার দিকে জলপাইগুড়ি পান্ডাপাড়া জুনিয়র বেসিক স্কুলের ১৭/১৫৫ নং বুথে ভোট দিতে যান তিনি।

সেখানে তাকে দেখতে পেয়ে সেলফি তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন সেকেন্ড পোলিং অফিসার। নির্বাচনের কাজে থাকাকালীন এমন কর্মকাণ্ডে নিজের দায়িত্ব হারিয়েছেন সেই পোলিং অফিসার।

মিমিকে দেখে সেলফি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মীরা। তাই নিজের কর্তব্যও ভুলে গেলেন সেকেন্ড পোলিং অফিসারও। ভোট দিতে ঢোকার পর থেকেই নায়িকার সঙ্গে সেলফি তোলার চেষ্টা করছিলেন তিনি। সেই সময়ই তাকে সতর্ক করেন মিমি। তিনি বলেন, ‘আপনার চাকরিটাও যাবে, আমারটাও যাবে।’

মিমির ভোট দেওয়া শেষ হতেই ফের তার সঙ্গে সেলফি তোলার আবদার করেন ওই পোলিং অফিসার। ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের বাইরে বেরিয়ে আসেন সেকেন্ড পোলিং অফিসার। নায়িকার সঙ্গে সেলফিও তোলেন তিনি।

তবে ভারতের নির্বাচনীবিধি বলছে, বুথ ছেড়ে পোলিং অফিসারের বাইরে বেরিয়ে আসা নিয়ম বিরুদ্ধ। এতে একদিকে ভোটপ্রক্রিয়ায় বাধা পড়তে পারে। অন্যদিকে ভোট প্রক্রিয়া প্রভাবিত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়। পোলিং অফিসার বাইরে বের হয়ে সেই নিয়মই ভঙ্গ করেছেন। ফলে তাকে নির্বাচনের দায়িত্ব থেকে অপসারণ করা হয়েছে।