বিরিয়ানির মান শুনলে জিভে জল আসে না এমন বাঙালি কমই আছেন। এই বিরিয়ানিরও পদের শেষ নেই। কাচ্চি বিরিয়ানি, ঢাকাইয়া, হায়দ্রাবাদিসহ নানান ধরনের বিরিয়ানিতে রসনা মেটান ভোজন রসিকরা।

তবে আমাদের দেশে বাড়ির কাছে, কিছুটা দূরেই গড়ে উঠছে অসংখ্য বিরিয়ানির দোকান। যেখানে খুব কম মূল্যেই এক প্লেট বিরিয়ানি খেতে পারেন। তবে বিশ্বের এমন অনেক দেশ আছে যেখানে এক প্লেট বিরিয়ানির জন্য হাজার হাজার টাকা খরচ করতে হয়।

তবে এক-এক জায়গায় বিরিয়ানির স্বাদ এক-একরকম হয়। শুধু স্বাদ বললে ভুল বলা হবে, দামেরও রকমফের হয়। কিন্তু সবচেয়ে দামি বিরিয়ানির দাম কত হতে পারে সেই বিষয়ে তোমার কোনো ধারণা আছে কি? জেনে নিন কোথায় কত টাকায় মেলে সবচেয়ে দামি বিরিয়ানি?

দুবাই শহরের ‘দ্য বোম্বে বরো’ রেস্তোরাঁয় বিক্রি হয় বিশ্বের সবচেয়ে দামি বিরিয়ানি। এখানে এক প্লেট বিরিয়ানির মূল্য প্রায় ৩০ হাজার টাকা। শুনেই চক্ষু চড়কগাছ হয়ে গেল তো? মনে প্রশ্ন আসতেই পারে এত দাম কেন?

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যানশিয়াল সেন্টারে রয়েছে এই রেস্তোরাঁ। এই রেস্তোরাঁয় পাওয়া যায় ‘রয়্যাল গোল্ড বিরিয়ানি’। সুবিশাল সোনার থালায় পরিবেশন করা হয় এই বিরিয়ানি। সঙ্গে থাকছে ২৩ ক্যারাট সোনার পাতা। জানা গিয়েছে, এই পাতা খাদ্যযোগ্য। দুবাইয়ের মুদ্রায় এই খাবারের দাম ডিএইচ ১০০০, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৩০ হাজার টাকা।

এখানকার এক প্লেট বিরিয়ানিতে থাকে সুগন্ধি বিরিয়ানি রাইস, কাশ্মীরি মাটন কাবাব, মালাই চিকেন, পুরানি দিল্লি মটন চাপ আর মোগলাই কোপতা। এই সবকিছুই সোনালি মোড়ক এবং জাফরান দিয়ে সাজানো থাকে বলে এর দাম এত বেশি।

তবে এই একপ্লেট বিরিয়ানি কিন্তু ছয় থেকে সাতজন অনায়াসেই খেতে পারে। কখনো দুবাই সফরে গেলে এই বিরিয়ানি কিন্তু চেখে দেখতে একদম ভুলবেন না। প্রিয়জনদের সঙ্গে একবেলা এই ভোজন বিলাস করে নিতে পারেন।