মা;দ;ক মা;ম;লায় গ্রে;ফ;তার বলিউড তারকা শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান জামিন পাননি। বুধবার (২০ অক্টোবর) পর্যন্ত জেলেই থাকবেন তিনি। বর্তমানে জেলে শাহরুখপুত্রের কাউন্সেলিং চলছে। তাকে নেশামুক্ত করে, ফের সাধারণ জীবনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছেন তারা।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) সঙ্গে যথেষ্ট সহযোগিতা করছেন আরিয়ান। জে;ল থেকে বে;রি;য়ে কী করবেন, তাও জানিয়েছেন। একটি প্র;তি;জ্ঞাও ক;রে;ছে;ন শাহরুখপুত্র।

মুম্বিই সেশন কোর্ট ১৫ অক্টোবর জামিন আবেদনের রা;য় দান স্থগিত রাখেন। এনসিবির হয়ে ওই দিন ডিশানাল সলি;সিটর জেনারেল অনীল সিং। তিনি আদা;লতে জানান, কয়েক বছর ধরে প্রায় প্রত্যেকদিনই মা;দ;ক সেবন ক;রতেন আরিয়া;ন খান।

এমন;কী মহা;ত্মা গান্ধী;কে টেনে এনেও জামিন খা;রি;জে;র পক্ষে সওয়া;ল করেন তিনি। বলেন, এটা মহাত্মা গা;ন্ধী;র দেশ। এই ধর;নের স্বভাব দেশের যুবদের খারা;প পথে চালিত করবে।

আরি;য়ানের পক্ষে অমিত দেশাই বলেন, আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট;কে হাতি;য়ার করে যে অভি;যো;গ করছে কেন্দ্রী;য় সংস্থা তা ভ্রান্ত। কারণ, আজকাল এমন ভাষা;তেই কথা বলে যুব সমাজ। দুপক্ষের বক্তব্য শোনা;র পর ২০ অক্টোবর পর্যন্ত রা;য় দান স্থগিত রাখেন বিচারক।

এরপরই জেলে আরিয়ানের কাউন্সেলিং শুরু হয়। সূত্রের খবর, সেখানে শাহরুখপুত্র নিজের ভুল কবুল করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, জেল থেকে বেরিয়ে, স্বাভাবিক জীবনে সমাজের দুঃস্থ মানুষ;দের জন্য কাজ করবেন তিনি।

পিছিয়ে পড়া মানুষদের মূলস্রোতে ফেরানোর চেষ্টা করবেন। এনসিবির মুম্বাই ইউনিটের ডিরেক্টর সমীর ও;য়া;ঙ্কে;দাকে আরিয়ান কথা দিয়েছেন, একদিন গর্ব করার মতো কাজ করবেন।

আরি;য়ান খানের বি;রু;দ্ধে আরও একটি গুরু;তর অভি;যো;গ এনেছে এনসিবি। মা;দ;ক নিয়ন্ত্রক সংস্থার দাবি, মা;দ;ক নেওয়ার ক্ষেত্রে আরিয়ানের সঙ্গে বিদেশেরও কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। ওইসব লোকজন আন্তর্জাতিক মা;দ;ক চোরাচালান চক্রের সঙ্গে যুক্ত।