বার্সেলোনা থেকে ফ্রি ট্রান্সফারেই প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) চলে এসেছেন লিওনেল মেসি। এরপর থেকেই একটা প্রশ্ন বাতাসে ঘুরে বেড়াচ্ছে, আর্জেন্টাইন এ ফরোয়ার্ডের বেতন কত? এই ব্যাপারে একেকবার এসেছে একেক রকম তথ্য।

বেশ কিছু সংবাদমাধ্যম ৩৫ মিলিয়ন ইউরোর কথা বলেছিল প্রথমে। পরে শোনা যায়, বার্ষিক বেতন ৪০ মিলিয়ন ইউরো। তবে এসব কিছুই ছিল অনুমান। আসল তথ্য জানা যায়নি।

এবার ফরাসি সংবাদপত্র ‘এলইকুইপে’ দাবি করছে, তারা মেসির সত্যিকারের বেতনের অংকটা বের করতে পেরেছে। তারা জানিয়েছে, প্যারিসে আগামী দুই মৌসুম ৩০ মিলিয়ন ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩০০ কোটি টাকা) করে পাবেন আর্জেন্টাইন খুদেরাজ।

তৃতীয় বছর থাকতে রাজি হলে বেতনটা ১০ মিলিয়ন ইউরো বাড়বে। অর্থাৎ ৪০ মিলিয়ন ইউরো বা প্রায় ৪০০ কোটি টাকা পাবেন মেসি। এছাড়াও আলাদা পাবেন ব্যক্তিগত ও টিম বোনাস।

আগে শোনা গিয়েছিল, পিএসজিতে সবচেয়ে বেশি বেতন পাচ্ছেন মেসিই। তবে ‘এলইকুইপে’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, ছয়বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী ফুটবলার ঠিক নেইমারের সমানই বেতন পাচ্ছেন।

২০২৫ সাল পর্যন্ত নেইমার তার চুক্তি বাড়িয়েছেন পিএসজির সঙ্গে। তবে মেসির মতো দুই বছর ঘুরলে বেতন বাড়বে না নেইমারের, বরং বছর বছর তার বেতন কমার কথা আছে চুক্তিতে।

চুক্তির একটি উল্লেখযোগ্য অংশ হলো, মেসিকে ক্লাবের ক্রিপটোকারেন্সি পিএসজি ফ্যান টোকেনের মাধ্যমে বছরে আরও এক মিলিয়ন ইউরো বাড়তি প্রদান করা হবে। পিএসজি ‘ক্রিপটোডটকম’-এর সঙ্গে চুক্তি করেছে, যেখান থেকে প্রতি মৌসুমে ২৫ থেকে ৩০ মিলিয়ন ইউরো লাভ পাবে।